শিরোনাম
  বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের       মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য       শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ       আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট       অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ       মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু       বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান       গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার       ৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক       বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ    
২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : আগস্ট, ৫, ২০২০, ০৪:০৮ অপরাহ্ণ

পাঠক দেখেছেন 707 জন
 

পলাশ হোসেন, বিশেষ প্রতিনিধি:বন্যায় ভেসে গেছে লাখো বন্যার্তদের ঈদ আনন্দ। বানের পানি যেন তাদের ঈদ আনন্দ সব ধুয়ে মুছে নিয়ে চলে গেছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়িঘর তলিয়ে যাওয়ায় তারা ঈদ করছে খোলা আকাশের নিচে। কোনো নতুন জামা তো দুরের কথা তাদের অধিকাংশ বাড়িতেই আজও চুলা জ্বলেনি। সরকারী বেসরকারি সহায়তার দিকে তাকিয়ে আছে এসব অসহায় মানুষ। যখন পেট চালানোই সমস্যা তখন ঈদের মত বিশেষ দিনটিও খুশি বয়ে আনতে পারেনি তাদের মনে।

করোনা মহামারিতে উৎসবের রং ফিকে হয়েছে অনেকটাই। তার উপর আবার বন্যা যেন মরার উপর খাঁড়ার ঘা।
জামালপুর,সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল,কুড়িগ্রাম সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বাড়িঘর তলিয়ে যাওয়ার দুর্গতদের ঠাই হয়েছে খোলা আকাশের নিচে বাধের উপর। তেমনই কিছু চিত্র,
বানের পানিতে ভেসে গেছে জামালপুরের ৭০ বছর বয়সী রহিমুদ্দিনের বাড়িঘর। বাধ্য হয়ে গত ১ মাস ধরে তার স্ত্রী ও পাঁচসন্তান সহ আশ্রয় নিয়েছেন বাঁধের উপর। গায়ে ওঠেনি নতুন জামাকাপড়, পেটে পরেনি ভালোমন্দ এভাবেই কেটেছে ঈদ। জামালপুরের বন্যাদুর্গত এলাকার বহু মানুষের অবস্থা এই একই।
ঈদের আনন্দ মলিন কুড়িগ্রাম বানভাসিদের মাঝেও। করোনায় কাজ হারানো মানুষ এখন বন্যার সাথে যুদ্ধ করতে করতে ক্লান্ত। দেড় মাস ধরে পানির সাথে যুদ্ধ করে বাড়ি ছারতে হয়েছে কয়েকবার। এখন বাড়ি ছেরে আশ্রয় নিতে হয়েছে উচু রাস্তায় নয়ত আশ্র‍য় কেন্দ্রে। এভাবেই কাটছে তাদের ঈদ অসহায় ভাবে।
সিরাজগঞ্জের এক নারী জানান, এই করোনা আবার বন্যা। ছেলেমেয়েদের কিছু রান্না করে খাওয়াইতে পারি নাই। আমাদের কোনো ঈদ নাই আমরা অনেক অসহায়। বাচ্চাদের কোনো কাপড় কিনে দিতে পারিনাই।
এভাবেই করোনা ও বন্যার প্রভাবে কর্মহীন ও বাড়িছাড়া হাজার মানুষের চাপা কান্নায় মলিন হয়ে গেছে ঈদ আনন্দ। তারা অসহায়। তাদের সসহযোগিতা দরকার। সরকারী ও বেসরকারি মহলের কাছে তারা সাহায্য প্রার্থনা করেছে।

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের

মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য

শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট

অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ

মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু

বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান

গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার

৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক

বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ

পোশাক শ্রমিকদের হঠাৎ বাড়ি ফেরার হিড়িক

কথা রাখলেন না গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ, চাকরিচ্যুত শ্রমিক-দম্পতি

বিজিএমইএ সভাপতি কতৃক শ্রমিক ছাটাই ঘোষণার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে

সাভারে পোশাক শ্রমিকদের ঢিলেঢালা ঈদ উৎযাপন

৯০ এর রাজপথ কাপানো জাসদ নেতা হান্নান ক্যান্সারে আক্রান্ত

বিজিএমইএ’র অনুরোধ রাখলো না সাভারের অনেক পোশাক কারখানা!

এ্যাসপায়ার গার্মেন্টসের শ্রমিককে জোরপূর্বক চাকরিচ্যুত, বেতন পরিশোধের ভিডিও করে বেতন কেড়ে নেলো কর্তৃপক্ষ

ট্রাকে ঈদযাত্রা: ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় গার্মেন্টসকর্মী মৌসুমীকে

বিজিএমইএ’র সভাপতির শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণা অত্যন্ত অমানবিক নিষ্ঠুরতা

মায়ের কবরের পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হতে চান – দাদা ভাই

 

Top