শিরোনাম
  ক্রান্তি লগ্ন-সুলেখা আক্তার শান্তা       শুদ্ধচিত্ত বাংলাদেশ এওয়ার্ড ২০২১ পেলেন কবি মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ       সাড়ে ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রিন্ট শুরু       কুড়িগ্রামের রাজারহাট প্রেমিকের ধাক্কায় অটোরিকশা থেকে পড়ে কিশোরীর মৃত্যু       নারায়নপুর ইউপি নির্বাচনে কামাল মাতাব্বরকে ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী।       বিভীষিকাময় তাজরিন ট্র্যাজেডি, সেই পোড়া গন্ধ এখনো ভুলতে পারেনি শ্রমিকরা       রানা প্লাজার মালিকের জামিন হাইকোর্টে স্থগিত       ব্রাম্মনবাড়ীয়ায় নামাজ পড়ার সময় ইমামের মৃত্যু       ‘ভ্যাকসিন না পেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা কঠিন’       বেড়েছে চাল তেল পেঁয়াজ আলুর দাম:জড়িতদের বিরুদ্ধে হার্ডলাইনে সরকার    
২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : সেপ্টেম্বর, ২৭, ২০২০, ১২:৩৯ অপরাহ্ণ

খবরটি পড়েছে 108 জন
 

তারেক হাবিব, হবিগঞ্জ থেকে ॥ সিলেট এমসি কলেজে গৃহবধুকে গণধর্ষনের ঘটনায় অভিযুক্তদের পরিচয় পাওয়া গেছে। পরিচয় সনাক্তের পর শুক্রবার রাতে ধর্ষিতার স্বামী মাইজুল ইসলাম বাদী হয়ে স্থানীয় শাহপরাণ থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার এজাহারে নাম থাকা ৪জন কলেজের ছাত্র এবং বাকী ২জন বহিরাগত তবে এরা সবাই ছাত্রলীগের কর্মী। পরিচয় সনাক্ত করে জানা গেছে মামলার অন্যতম প্রধান আসামী শাহ মাহবুবুর রহমান রনি’র বাড়ি হবিগঞ্জ। জানা যায়, গত শুক্রবার রাত ৮টায় সিলেট শাহপরান মাজার জিয়ারত শেষে এমসি কলেজ ঘুরে দেখতে ক্যাম্পাসের ভেতরে প্রবেশ করেন দক্ষিণ সুরমা এলাকার মাইজুল দম্পত্তি। কলেজ ক্যাম্পাস ঘুরে দেখতে ভেতরে প্রবেশ করলেই ৮/১০ জন যুবক তাদের ভয় দেখিয়ে ছাত্রবাসে নিয়ে যায়। সেখানে তার স্বামী মাইজুল ইসলামকে মারপিট করে বেধে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। এক পর্যায়ে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়ে ওই গৃহবধু জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাকে বাহিরে রেখে পালিয়ে যায় তারা। পরে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে সিলেট এমজি ওসমানী মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। এদিকে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরার পর দেশ জুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় সৃষ্টি হয়। অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে তৎপর হয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। শাহ পরাণ থানার ওসি মোঃ আব্দুুল কাইয়ুম চৌধুরী দৈনিক আমার হবিগঞ্জ’কে জানান, এ ঘটনায় ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশের সাড়াসী অভিযান চলছে। রাতের বেলায় কলেজ ক্যাম্পাসে তারা কেন গেলেন এরা আদৌ স্বামী-স্ত্রী নাকি অন্য কোন সম্পর্ক আছে তাদের মধ্যে এ প্রশ্নের জবাবে ওসি আরো বলেন, ‘‘বিষয়টি তদন্তকারী কর্মকর্তা দেখবেন, তবে আপাতত অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
কে এই ধর্ষক শাহ মাহবুবুর রহমান রনিঃ-
শাহ মাহবুবুর রহমান রনি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের বাগুনিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা দিনমুজুর শাহ জাহাঙ্গীর মিয়ার পুত্র। শাহ মাহবুবুর রহমান রনি ছোট বেলা থেকেই ছিলেন উদ্র ও বদমেজাজী প্রকৃতির। মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান হলেও তার চলাফেরা ছিলো রাজকীয় হালে। রনি শায়েস্তাগঞ্জ একাডেমী থেকে এসএসএসি পাশ করে হবিগঞ্জ সরকারী বৃন্দাবন কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট ও শাবিপ্রবি থেকে অর্নাস এবং পরে এমসি কলেজে স্নাতকোত্তর করছিলো। পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা সহজ-সরল হলেও রনির চরিত্র নিয়ে শুরু থেকেই চিন্তিত ছিলেন সবাই। তথ্য আছে, রাজনৈতিক দলের প্রভাব খাটিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার নীরিহ মানুষদের নানান ভাবে হয়রাণি করে আসছিল সে। ইদানিং তার রাজকীয় চলা-ফেরা দেখে সবাই অবাক হয়েছেন। প্রতিবেশী সুত্রে জানা যায়, মাস শেষ হলেই বাড়িতে লক্ষাধিক টাকা পাটাত রনি। সম্প্রতি বিলাস বহুল বাইক, বাড়িতে দামী আসবাব পত্র ও ক্রয় করেছে সে। গত ঈদে ৩০ হাজার টাকার শফিং করে তা আবার ফেসবুকে পোস্ট করেছে সে। তাছাড়া ছাত্রলীগ নেতার দাফটে পুরো শায়েস্তাগঞ্জকে শাসন করে রাখত সে। যেকোন ধরনের সভা-সমাবেশে উপস্থাপনায় থাকতো সে। সুদর্শন ও সুবক্তা রনি’র চাকুরী বিহীন বিলাসি চলাফেরাকে অনেকেই সন্দেহের চোখে দেখছেন।

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

ক্রান্তি লগ্ন-সুলেখা আক্তার শান্তা

শুদ্ধচিত্ত বাংলাদেশ এওয়ার্ড ২০২১ পেলেন কবি মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ

সাড়ে ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্সের প্রিন্ট শুরু

কুড়িগ্রামের রাজারহাট প্রেমিকের ধাক্কায় অটোরিকশা থেকে পড়ে কিশোরীর মৃত্যু

নারায়নপুর ইউপি নির্বাচনে কামাল মাতাব্বরকে ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী।

বিভীষিকাময় তাজরিন ট্র্যাজেডি, সেই পোড়া গন্ধ এখনো ভুলতে পারেনি শ্রমিকরা

রানা প্লাজার মালিকের জামিন হাইকোর্টে স্থগিত

ব্রাম্মনবাড়ীয়ায় নামাজ পড়ার সময় ইমামের মৃত্যু

‘ভ্যাকসিন না পেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা কঠিন’

বেড়েছে চাল তেল পেঁয়াজ আলুর দাম:জড়িতদের বিরুদ্ধে হার্ডলাইনে সরকার

 

Top