শিরোনাম
১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : অক্টোবর, ২৬, ২০২১, ০৬:৩২ অপরাহ্ণ

পাঠক দেখেছেন 459 জন
 

মাহমুদুল হাসান আশিক,তুরাগ(উত্তরা): রাজধানীর তুরাগ থানাধীন ধউর তুরাগ থানা সংলগ্ন তরী ফ্যাশনের মূল ভবনের সামনে শিশু শ্রমিক জুয়েল মিয়া হত্যার বিচার চেয়ে শ্রমিকদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।এসময় তরী ফ্যাশনের সামনে থেকে থানা রোড পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করেন বিভিন্ন ফেডারেশনের শ্রমিক নেতা ও শ্রমিকরা।

 

এর আগে গত ৪ই অক্টোবর ২০২১ সোমবার তুরাগ থানাধীন ধউর স্কুলের পাশের তরী ফ্যাশনে হত্যার শিকার হন ১৫ বছরের শিশু শ্রমিক জুয়েল মিয়া। এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা নিয়ে কানামাছি হয় দীর্ঘ ১২/১৩ ঘন্টা। এরপরও মামলার এজহারে সঠিক তথ্য এবং মালিক পক্ষকে আসামি করে মামলা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

 

শিশু শ্রমিক জুয়েলের মামা জাহিদ হাসান জানান,”আমরা মামলা করতে গেলে পুলিশ প্রথমে অপমৃত্যু মামলা করার জন্য আমাদের উপর প্রেশার ক্রিয়েট করে।এক পর্যায়ে আমার সাথে কথা কাটাকাটি হয় তুরাগ থানর অফিসার ইনচার্জ মেহেদী হাসান এর সাথে।এরই মধ্যে সেখানে সংবাদ কর্মীরা উপস্থিত হন। সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে হত্যা মামলা নিতে চায় থানার কর্তৃপক্ষ কিন্তু মামলা নিতে ঘড়িমসি করেন।অত:পর সাংবাদিকরা থানার গেট থেকে বেরিয়ে এলেই মালিকের বিরুদ্ধে মামলা না নিয়ে নিজেদের ইচ্ছেমতো মামলা সাজিয়ে নিয়েছেন।

 

বাংলাদেশে আইন আছে কিন্তু আইনের বিচার নেই। আমরা আমাদের সন্তান হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই।” হত্যার শিকার শিশু শ্রমিক জুয়েল মিয়ার বাবা মানববন্ধনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন,”আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে এলাকা ছাড়া করতে চাচ্ছে এই ফ্যাক্টরির মালিক। মাইর খেয়ে সন্তান ও হারালাম এলাকাও ছাড়বো তা হতে পারেনা। আমি আমার একমাত্র সন্তান হত্যার বিচার চাই,ফাঁসি চাই হত্যার সাথে জড়িতদের।”

 

শিশু শ্রমিক হত্যার বিচারের দাবিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে স্বাধীন বাংলা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি শ্রমিক নেতা আল-কামরান জানান, “তরী প্যাক্যাজিং এ শিশু শ্রমিক হত্যা হয়েছে এর দায় মালিক এড়াতে পারেনা।যেহেতু কারখানায় শ্রমিক হত্যা হয়েছে সেহেতু মালিককে আসামি করতে হবে এবং ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মালিকসহ সকল আসামীকে গ্রেফতার করতে হবে।আগামি ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আমাদের দাবি মেনে না নিলে আশুলিয়া, উত্তরা,গাজিপুর, নারায়নগঞ্জসহ সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন এর ঘোষণা দেন সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

 

এই সময় উক্ত মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন টেক্সটাইল গর্মেন্টস ওয়ার্কাস ফেডারেশনের। সহ সভাপতি মোঃ আল আমিন সরকার, শ্রমিক নেত্রী ডলি আক্তার,গ্রীন বাংলা ফেডারেশনের নেত্রী রুজিনা আক্তার সুমি এবং স্বাধীন বাংলা ফেডারেশনের নেত্রী রেবেকা আক্তারসহ আরও অনেক নেতা কর্মীরা। মানববন্ধন শেষে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শ্রমিকরা। বিক্ষোভ মিছিলে তারা শিশু শ্রমিক জুয়েল হত্যার সাথে জড়িত সকল আসামিদের ফাঁসি দাবি করেন।

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

 

Top