শিরোনাম
১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : নভেম্বর, ২২, ২০২১, ০৭:২৪ অপরাহ্ণ

পাঠক দেখেছেন 179 জন
 

রাজবাড়ী: রাজবাড়ীর পদ্মা নদীতে বালু কাটতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের গুলিতে ৬ বালু কাটা শ্রমিক আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে একজনের শরীরে ৫টি গুলি লাগে।

সোমবার (২২ নভেম্বর) সকালে রাজবাড়ী থেকে বালু কাটতে গেলে পাবনার জেলার নাজিরগঞ্জের কিছু দুর্বৃত্ত গুলি করে এবং তাদের পিটিয়ে আহত করে।

আহতরা হলেন- বরিশাল জেলার সেন্টু মোল্লার ছেলে আবু তালেব মোল্লা (৩৫), চাঁদপুর জেলার সিদ্দিকের হোসেনের ছেলে মমিন হোসেন (৪২), ময়মনসিংহ জেলার সামছু শেখের ছেলে হাবিব শেখ (৩৪), চাঁদপুর জেলার আলী আহমেদের ছেলে আলী আকবর (৩০) এবং ভোলা জেলার খোরশেদ আলমের ছেলে মোশারফ শেখ (৩৪)।

এর মধ্যে আবু তালেবের শরীরের ৫টি গুলি লাগে এবং তার অবস্থা কিছুটা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাইফুর রহমান।

সাইফুর রহমান জানান, আবু তালেবের অবস্থা কিছুটা আশঙ্কাজনক। ২৪ ঘণ্টা পর তার অবস্থা সম্পর্কে বুঝা যাবে। তাকে আমরা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখছি। বাকিদের অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। সবারই শরীরেই বেশ আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আহত শ্রমিকদের নিয়ে আসা আরেক শ্রমিক মাসুদ রানা জানান, আমরা সকালে বালি কাটতে গেলে হঠাৎ করেই কিছু লোক আমাদের গুলি করে এবং পেটাতে থাকে। তাদের সেখান থেকে উদ্ধার করে আমরা রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে আসছি।

আরেক শ্রমিক আব্দুল হান্নান জানান, আমরা প্রতিদিনের মতই আজ কাজ করতে যাই। সেখানে যাওয়ার পরপরেই ৫টি ট্রলারে এসে কিছু লোক আমাদের বাল্কহেডে গুলি করে। তারা ড্রেজার মেশিনের লোকদের মারধর করে ড্রেজার মেশিন ও বাল্কহেডটি নিয়ে চলে যায়।

রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহাদত হোসেন জানান, যেহেতু এটি রাজবাড়ীর সীমানার বাইরের ঘটনা সেহেতু এখানে আমাদের আইনি কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ নেই। আমি খবর পেয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে এসেছি। যদি পাবনা জেলা পুলিশ থেকে কোনও ধরনের আইনি সহায়তা চাওয়া হয়, আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হবে।

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

 

Top