শিরোনাম
  বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের       মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য       শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ       আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট       অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ       মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু       বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান       গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার       ৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক       বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ    
৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : জুন, ১৫, ২০২০, ১০:০১ পূর্বাহ্ণ

পাঠক দেখেছেন 608 জন
 

দিনাজপুরের হিলিতে বাজারের বিভিন্ন আড়তে বস্তা সেলাইয়ের কাজ করে সংসার চলছে ৫০ থেকে ৬০ জন শ্রমিকের । যে যত হাত চালাতে পারবেন তার তত বেশি উপার্জন।

হিলি স্থলবন্দরে প্রতিদিন ভারত থেকে আমদানি হয় বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী। বন্দরে রয়েছে প্রতিটি আমদানি কারকদের পণ্য রাখার গুদাম। সেখানে প্রয়োজন হয় অনেক বস্তার। তাই হিলিতে রয়েছে অনেক বস্তার আড়ৎ।

বন্দরের বস্তার আড়ৎগুলো ঘুরে দেখা যায়, ছেঁড়াফাটা ও পুরনো বস্তা সেলাই করছেন বেশকিছু শ্রমিক। আড়তের বারান্দায় বসে সুই এবং সুতলি নিয়ে এসব নারী-পুরুষ শ্রমিকেরা সেলাই কাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলে তাদের এই কর্ম ব্যস্ততা। যে যত তাাঁতাড়ি সেলাই করবে তার উপার্জন তত বেশি হবে। বেশি ছেঁড়াফাটা বস্তা সেলাইয়ে মজুরি আড়াই থেকে তিন টাকা, অল্প ছেঁড়াফাটা বস্তা দেড় থেকে দুই টাকা, আর সামান্য ছেঁড়াফাটা বস্তায় এক থেকে দেড় টাকা মজুরি পাচ্ছেন তারা।

কথা হয় বস্তা সেলাই শ্রমিক মিলন সরকারের সাথে। তিনি বলেন, ‘আমি সাত বছর যাবৎ এই বস্তা সেলাইয়ের কাজ করে আসছি। সংসারে দুই ছেলে, মা-বাবা, ছোট ভাই-বোন ও স্ত্রীসহ ৯ জন খানেওলা (সদস্য)। বোনের এখনও বিয়ে দিতে পারিনি। আমার উপর গোটা সংসার। একদিন বসে থাকলে সংসার চলে না। তাই সংসারের এতোগুলো মানুষের চাহিদা মেটাতে আমাকে প্রচুর পরিশ্রম করতে হয়। আমি নিজেকে একটা যান্ত্রিক মানুষ মনে করি। প্রতিদিন ২০০ থেকে ২৫০ পিস ছেঁড়াফাটা বস্তা সেলাই করি। তা থেকে সাড়ে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা প্রতিদিন উপার্জন হয়। কষ্ট হলেও চলছি কোন রকমে।’

রেহেনা বেওয়া নামের একজন নারী শ্রমিকের সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, ‘প্রায় চার বছর হলো আমার স্বামী মারা গেছেন। বস্তা সেলাইয়ের কাজ করেই দুই মেয়েকে নিয়ে চলছি। পুরুষদের মতো আমি অতো জোরেসোরে হাত চালাইতে পারি না। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কাজ করি। প্রতিদিন ১০০ থেকে ১২০ টি বস্তা সেলাই করি। তাতে রোজগার হয় ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। বড় মেয়েকে বিয়ে দিয়েছি। একটা নাতি আমার কাছে থাকে। ছোট মেয়ে এইবার এইচএসসি পরীক্ষা দেবে। মানুষের বাড়িতে ভাড়া থাকি। নিজের কোন বাড়িঘর নেই।’

আরিফ হোসেন নামের শ্রমিক বলেন, ‘আমার বাবা-মা ও স্ত্রীকে নিয়ে চারজনের সংসার। প্রতিদিন যা কামায় হয় তাই দিয়ে চলি, কোন সমস্যা হয় না।’

কথা হয় বস্তার আড়ৎদার আব্দুল মালেকের সাথে। তিনি বলেন, ‘আমার আড়তে বর্তমান ৪ জন শ্রমিক কাজ করছেন। তারা প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা মজুরি পেয়ে থাকেন। সারাদিন পরিশ্রম শেষে তাদের ন্যায মজুরি প্রতিদিন দিয়ে দেই। তাদের ভালমন্দ আমি দেখি। কোন সমস্যা হলে সমাধানের চেষ্টা করি।

সূত্র.রাইজিংবিডি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের

মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য

শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট

অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ

মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু

বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান

গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার

৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক

বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ

পোশাক শ্রমিকদের হঠাৎ বাড়ি ফেরার হিড়িক

কথা রাখলেন না গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ, চাকরিচ্যুত শ্রমিক-দম্পতি

বিজিএমইএ সভাপতি কতৃক শ্রমিক ছাটাই ঘোষণার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে

সাভারে পোশাক শ্রমিকদের ঢিলেঢালা ঈদ উৎযাপন

৯০ এর রাজপথ কাপানো জাসদ নেতা হান্নান ক্যান্সারে আক্রান্ত

বিজিএমইএ’র অনুরোধ রাখলো না সাভারের অনেক পোশাক কারখানা!

এ্যাসপায়ার গার্মেন্টসের শ্রমিককে জোরপূর্বক চাকরিচ্যুত, বেতন পরিশোধের ভিডিও করে বেতন কেড়ে নেলো কর্তৃপক্ষ

ট্রাকে ঈদযাত্রা: ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় গার্মেন্টসকর্মী মৌসুমীকে

বিজিএমইএ’র সভাপতির শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণা অত্যন্ত অমানবিক নিষ্ঠুরতা

মায়ের কবরের পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হতে চান – দাদা ভাই

 

Top