শিরোনাম
  বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের       মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য       শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ       আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট       অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ       মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু       বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান       গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার       ৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক       বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ    
২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রকাশিত সময় : জুন, ১৩, ২০২০, ০২:১৭ অপরাহ্ণ

পাঠক দেখেছেন 539 জন
 

বাবার দেখানো পথে হেঁটে হয়েছেন জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা। পাঁচবার জাতীয় সংসদ সদস‌্য নির্বাচিত হয়েছেন। আওয়ামী লীগ সরকারের বিভিন্ন সময়ে যেমন সামলেছেন একাধিক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব, তেমনই বিরোধী দলে থাকার সময় আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছেন সামনে থেকে। বাংলাদেশের রাজনীতির উজ্জ্বল সেই নক্ষত্রের নাম মোহাম্মদ নাসিম।

শনিবার (১৩ জুন) মোহাম্মদ নাসিমের জীবনাবসানের মধ‌্যে দিয়ে এক বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি ঘটল। বেলা ১১টা ১০ মিনিটের দিকে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে, তার দল আওয়ামী লীগে এবং নির্বাচনী এলাকা সিরাজগঞ্জে।

যোগ্য পিতার যোগ্য সন্তান:
১৯৪৮ সালের ২ এপ্রিল সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মোহাম্মদ নাসিম। তার বাবা শহীদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন। তিনি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের প্রাক্কালে মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে গঠিত বাংলাদেশ সরকারের অর্থ, শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এবং স্বাধীনতা পরবর্তী বঙ্গবন্ধু সরকারের মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

মোহাম্মদ নাসিমের মায়ের নাম মোসাম্মৎ আমিনা খাতুন, যিনি আমিনা মনসুর হিসেবে পরিচিত। তিনি গৃহিণী ছিলেন। মোহাম্মদ নাসিম তিন সন্তানের জনক। তার স্ত্রীর নাম লায়লা আরজুমান্দ। মোহাম্মদ নাসিম জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (তৎকালীন জগন্নাথ কলেজ) থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।

যেভাবে রাজনীতিতে উত্থান:
১৯৬৭ সালে ছা্ত্রলীগে যোগ দেন মোহাম্মদ নাসিম। পরবর্তীতে সম্পৃক্ত হয়েছিলেন যুবলীগের সঙ্গে। ১৯৮১ সালের আওয়ামী লীগের সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় রাজনীতিতে প্রবেশ করেন তিনি। ওই সম্মেলনে প্রথমবারের মতো আওয়ামী লীগের যুব সম্পাদক নির্বাচিত হন।

১৯৮৭ সালের সম্মেলনে তিনি দলের প্রচার সম্পাদক, ১৯৯২ ও ১৯৯৭ সালের সম্মেলনে সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ২০০২ ও ২০০৮ সালের সম্মেলনে দলের কার্যনির্বাহী কমিটির এক নম্বর সদস্য পদ পান। ২০১২ সালের সম্মেলনে তাকে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পদে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এরপর টানা তিন মেয়াদে তিনি এ পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৪ দলীয় মহাজোটের মুখপাত্র হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছিলেন।

মোহাম্মদ নাসিম রাজনীতির পাশাপাশি সমাজকল্যাণমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলেন। ঢাকাসহ নিজ এলাকা সিরাজগঞ্জে বেশকিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন তিনি।

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ার:
রাজপথে সব সময়ই সক্রিয় থাকা মোহাম্মদ নাসিমের রাজনৈতিক জীবনে অর্জন ও সাফল্য এসেছে অক্লান্ত পরিশ্রম ও কঠোর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে। এ দেশের অসংখ্য রাজনৈতিক ঘটনার নায়ক অথবা প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন তিনি।

বিএনপি-জামায়াত সরকারবিরোধী আন্দোলনের কারণে বিভিন্ন সময় নির্যাতন সইতে হয়েছে তাকে। রোষানলের শিকার হয়েছিলেন ১/১১ এর সরকারের সময়েও। কিন্তু আওয়ামী লীগ ও জাতির জনকের রাজনীতির প্রশ্নে তিনি ছিলেন সব সময়ই আপসহীন। রাজনৈতিক দূরদর্শিতা ও প্রজ্ঞার কারণে তিনি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার আস্থাভাজন ছিলেন।

ভোটের মাঠেও সফল নাসিম:
রাজপথের মতো ভোটের রাজনীতিতে সফল ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম। সিরাজগঞ্জ-১ সংসদীয় আসন (কাজীপুর) থেকে পাঁচবার বিজয়ী হয়েছেন। ১৯৮৬, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন মোহাম্মদ নাসিম। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে ও ২০১৮ সালেও তিনি সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।

২০১৪ সালের নির্বাচনে তৎকালীন ১/১১ সরকারের দেওয়া মামলার কারণে অংশগ্রহণ করতে পারেননি নাসিম। ওই নির্বাচনে তার সন্তান তানভীর শাকিল জয়কে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ। এরপর ২০১৪ সালের নির্বাচনে মোহাম্মদ নাসিমকে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ। ওই শাসনামলে তাকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর আগে ১৯৯৬ সালের সরকারে তিনি স্বরাষ্ট্র, গৃহায়ন ও গণপূর্ত এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে সাফল্যের সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

জীবন ও রাজনীতি থেকে বিদায়:
কয়েক যুগের সফল তারকা রাজনীতিবিদ মোহাম্মদ নাসিম পৃথিবীর সব মায়া ত্যাগ করে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। এর মাধ্যমে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

রাজনীতিবিদরা বলছেন, দেশ একজন দক্ষ রাজনীতিবিদকে হারালো। মোহাম্মদ নাসিমের বিদায়ে দেশের রাজনীতিতে অপূরণীয় ক্ষতি হলো।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments

     

আরও পড়ুন

বকেয়া টাকার দাবি পাটকল শ্রমিকদের

মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল চা বাগানে গাছের ডাল ভেঙ্গে এক নারী শ্রমিকের মৃত্য

শ্রমিক নেতা ইউসুফ শেখ’র উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

আশুলিয়ায় শ্রমিক নেতার ওপর হামলা করে ২২ হাজার টাকা লুট

অটোরিক্সা কেনার টাকা না দেয়ায় পোশাক শ্রমিক স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ

মালয়েশিয়ায় যেতে কর্মীদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু

বাকেরগঞ্জে নানার ধর্ষণে নাতনি অন্তঃসত্ত্বা -বাকিতে সালিশ করলেন চেয়ারম্যান

গার্মেন্টস শ্রমিকদের কার্ডের মাধ্যমে রেশন দেবে সরকার

৮ অগ্নিদগ্ধকে হেলিকপ্টারে ঢাকা পাঠানো হয়েছে: জেলা প্রশাসক

বন্ধুকে আগুন দেখাতে গিয়ে নিজেই হলেন লাশ

পোশাক শ্রমিকদের হঠাৎ বাড়ি ফেরার হিড়িক

কথা রাখলেন না গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ, চাকরিচ্যুত শ্রমিক-দম্পতি

বিজিএমইএ সভাপতি কতৃক শ্রমিক ছাটাই ঘোষণার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে

সাভারে পোশাক শ্রমিকদের ঢিলেঢালা ঈদ উৎযাপন

৯০ এর রাজপথ কাপানো জাসদ নেতা হান্নান ক্যান্সারে আক্রান্ত

বিজিএমইএ’র অনুরোধ রাখলো না সাভারের অনেক পোশাক কারখানা!

এ্যাসপায়ার গার্মেন্টসের শ্রমিককে জোরপূর্বক চাকরিচ্যুত, বেতন পরিশোধের ভিডিও করে বেতন কেড়ে নেলো কর্তৃপক্ষ

ট্রাকে ঈদযাত্রা: ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় গার্মেন্টসকর্মী মৌসুমীকে

বিজিএমইএ’র সভাপতির শ্রমিক ছাটাইয়ের ঘোষণা অত্যন্ত অমানবিক নিষ্ঠুরতা

মায়ের কবরের পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হতে চান – দাদা ভাই

 

Top